Eye Tech 24 https://www.eyetech24.com/2020/08/vpn.html

২০২০ এর সেরা ১০ টি VPN

আপনি কি VPN অ্যাপ খুঁজছেন? কিন্তু কোনটি আপনার জন্য ভালো হবে সেটা বুঝতে পারছেন না? যদি না বুঝে থাকেন তবে আপনি আপনার জন্য এমন কয়েকটি VPN এর সন্ধান এনেছি যেগুলো সম্পর্কে জানলে আপনি আপনার পছন্দ মতন একটি VPN চয়েস করতে পারবেন। তাই, দেরি না করে জেনে নিন ২০২০ এর ১০ টি সেরা VPN


EXPRESSVPN:

আপনি যদি VPN জগতে নতুন হয়ে থাকেন তবে EXPRESSVPN আপনার জন্য। EXPRESSVPN আপনি আপনার MAC, Windows, IOS, Android, Blackberry এবং Gaming Console ইত্যাদিতে সেটআপ দিতে পারবেন। আপনি যেন HBO, Netflix ইত্যাদি সাইটগুলোতে প্রবেশ করে সবথেকে ভাল সুবিধা পান তার জন্য EXPRESSVPN ৭ দিনে ২৪ ঘণ্টা তাদের কাস্টটোমার কেয়ার সার্ভিস খোলা রাখে। এছাড়াও আপনি EXPRESSVPN এ পাবেন 30 Days Money Back Guarantee। যার কারণে আপনি এক মাস EXPRESSVPN ব্যবহার করে যদি সাচ্ছন্দ্যবোধ না করেন তবে আপনার টাকা ফেরত দেওয়া হবে। তাই, দেরি না করে এখনই ব্যবহার করুন EXPRESSVPN অ্যাপ।

ডাউনলোডঃ EXPRESSVPN 

Surfshark:

Surfshark এমন একটি VPN অ্যাপ যেটা সহজে এরিয়া রেস্টিকশনের ঝামেলা এড়াতে পারে। আপনি Surfshark এ কোনো Free Trial পাবেন না। আপনাকে  বৎসরের জন্য প্রতিমাসে ১.৯৯ ডলার দিয়ে এই Surfshark ব্যবহার করতে হবে। তবে আপনি একমাসে ১.৯৯ ডলার দিয়ে এই VPN টি ব্যবহার করে এর উৎকৃষ্টতা জেনে নিতে পারেন। Surfshark লোকমুখে অনেক পরিচিত হলেও এর কাস্টটোমার কেয়ার সার্ভিস অনেক বেশি ভালো না। এছাড়াও অনেক লোকেশানে এটি ঠিক মতন কাজ করে না।

ডাউনলোডঃ Surfshark

CyberGhost:

CyberGhost মূলত Windows অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহারকারীদের জন্য অনেক বেশি সুযোগ সুবিধা নিয়ে এসেছে। এতে User Friendly ইন্টারফেস রয়েছে। এছাড়াও Windows ব্যবহারকারীরা সহজে তাদের স্টিমিং, টরেন্ট ফাইল ডাউনলোড ইত্যাদি কাজ সহজে করতে পারবে। প্রায় ৯০ টি দেশে ৬২০০ এর উপর CyberGhost কানেকশন আছে। আপনি CyberGhost দিয়ে আপনার পরিচয় গোপন রেখে বিটকয়েন ব্যবহার করে কেনাকাটা করতে পারবেন। এছাড়াও, আপনার Router এ আপনি সহজে CyberGhost ব্যবহার করতে পারবেন। আর CyberGhost  User Friendly ইন্টারফেস থাকায় আপনি সহজে CyberGhost কম্পানি সম্পর্কে অনেক কিছু সহজে জানতে পারবেন।

ডাউনলোডঃ CyberGhost

IPVanish:

IPVanish খুব দারুন একটি VPN সার্ভিস। এর ১৩০০ টি সার্ভার রয়েছে ৭৫ টির বেশি দেশে। এছাড়াও এর  দিন ২৪ ঘণ্টার কাস্টটোমার কেয়ার সার্ভিস অনেক ভালো। আপনি আপনার Windows অপারেটিং সিস্টেমে এটি সহজে ব্যবহার করতে পারবেন। তবে, এর মোবাইল ভার্সন ইন্টারফেস অনেকের কাছে পছন্দ নাও হতে পারে। তবে এটি বিশেষ কোনো সমস্যা না। আপনি 7 Days Money Back Guarantee এর সুযোগ এখানে পাবেন। তাই, পছন্দ না হলে আপনার টাকাও বেঁচে যাবে।

ডাউনলোডঃ IPVanish

NordVPN:

আপনি যদি VPN জগতে অনেক বেশি সুরক্ষিত থাকতে চান তবে NordVPN আপনার জন্য। এর রয়েছে DNS Leak Protection, উচ্চ স্পীড ইত্যাদি সুবিধা। এর Bitcoin, Paypal, Google Chrome এবংন FireFox এক্সটেন্সান রেয়েছে। আপনি কোনো ধরণের সমস্যায় পড়লে আপনি পাবেন লাইভ সাপোর্ট সুবিধা, ইমেইল সাপোর্ট সুবিধা এবং আরও অনেক কিছু। অন্যান্য VPN এর তুলনায় NordVPN অনেক বেশি সুরক্ষিত এবং আপনি কম দামে এটি কিনতে পারবেন।

ডাউনলোডঃ NordVPN

Private Internet Access (PIA):

আপনি যদি অনেকদিন ধরে VPN ব্যবহার করে থাকেন তবে আমি আশা করছি আপনি Private Internet Access এর নাম শুনে থাকবেন। Private Internet Access এর সবথেকে ভাল যে সুবিধা সেটা হল অ্যাপটি বাই ডিফল্ট আপনাকে সাজেস্ট করবে আপনার কাজের জন্য আপনার কোন লোকেশন নির্ধারণ করা উচিত। আপনি দেখে থাকবেন বেশিরভাগ VPN অ্যাপ Windows, Ios, Mac ইত্যাদি অপারেটিং সিস্টেমে চলে। তবে, এই অ্যাপটি আপনি Linux অপারেটিং সিস্টেমেও ব্যবহার করতে পারবেন। Private Internet Access এর ইঞ্জিনিয়াররা দিন রাত কাজ করে যাচ্ছে অ্যাপটি আরও বেশি উন্নত করার জন্য। সব মিলিয়ে অ্যাপটির সুযোগ যেমন বেশি ঠিক দামটাও চড়া।

ডাউনলোডঃ Private Internet Access 

Hotspot Shield:

আপনি যদি EXPRESSVPN এর মতন দামী VPN না কিনতে পারেন তবে আমি মনে করি Hotspot Shield আপনার জন্য। আপনি Hotspot Shield এ কিছু ফ্রী লোকেশন সার্ভিস পাবেন। তবে, আপনি যদি আরও কিছু সুযোগ সুবিধা পেতে চান তবে আপনাকে কিছু টাকা খরচ করে অ্যাপটি কিনতে হবে। EXPRESSVPN এর তুলনাই এটি অনেক কম দামী। আর এই অ্যাপটি থেকে অনেক ভালো স্পীড পেলেও আপনি এটি আপনার Router এবং Gaming Console এ ব্যবহার করতে পারবেন না।

ডাউনলোডঃ Hotspot Shield

Windscribe:

আপনি যদি এমন কোনো VPN চান যেটা আপনাকে একসাথে অনেকগুলো ডিভাইস কানেক্ট করার সুযোগ দেবে তবে Windscribe আপনার জন্য। আপনি Windscribe ব্যবহার করলে প্রতি মাসে ১০ জিবি ফ্রী পাবেন। এছাড়াও, একসাথে আপনি যতগুলো ডিভাইস কানেক্ট করতে চান সে সুযোগও পাবেন। Windscribe অনেকগুলো ডিভাইসের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ যেমন: Router, Amazon Fire, Kodi TV Set Box ইত্যাদি। এছাড়াও আপনি Netflix এর ফরেন ক্যাটালগ ব্যবহার করতে পারবেন Windscribe ব্যবহার করে। তবে Windscribe এর স্পীড এর কথা বললে এটি অন্যান্য VPN থেকে অনেক পিছে পড়ে যায়। আপনি বিটকয়েন দিয়ে Windscribe কিনতে পারেন। আপনার ইমেইলও এখানে দেওয়া লাগবে না।

ডাউনলোডঃ Windscribe

TunnelBear:

আপনি যদি VPN জগতে একদম নতুন হয়ে থাকেন তবে আপনি TunnelBear ব্যবহার করতে পারেন। কারণ, এর Easy User Interface আপনাকে অনেক সহজে অ্যাপটি চালাতে সাহায্য করবে। এছাড়াও এর রয়েছে Free Trial সুবিধা। TunnelBear তাদের Privacy এবং Security নিয়ে অনেক বেশি সচেতন। তাই, আপনি এটি ব্যবহার করে অনেক বেশি নিশ্চিন্ত থাকতে পারবেন। এটা দামের দিক থেকে অন্যান্য VPN অ্যাপ থেকে অনেক কম। তবে, আপনি এটি Router বা Gaming Console এ ব্যবহার করতে পারবেন না।

StrongVPN:

StrongVPN আমি বেস্ট VPN তালিকায় রাখবো এর সলিড পারফরমেন্সের জন্য। আপনি StrongVPN এ একসাথে ১২ টি ডিভাইস কানেক্ট করতে পারবেন। তবে এর দাম অনেকটা বেশি। যদিও আপনি StrongVPN এ পাবেন অনেক বেশি স্পীড এবং সিকিউরিটি। StrongVPN এ কোনো Free Trial সুযোগ নেয়। তবে 30 Days Money Back Guarantee সুযোগ আছে। এছাড়াও আছে  দিন ২৪ ঘণ্টার কাস্টটোমার কেয়ার সার্ভিস।

ডাউনলোডঃ StrongVPN

তাই, দেরি করবেন কেন? আপনার প্রয়োজন এবং সামর্থ্যর ওপর নজর রেখে ট্রাই করে নিন VPN সার্ভিসগুলো।

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

নতুন পোস্টের নটিফিকেশন পেতে চান?

নটিফিকেশন ও নোটিশ এরিয়া